ইসলামি বর্ষপঞ্জি !

আসসালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ বন্ধুরা এবং সালাম জানাই আমার গুরুদের ।কেমন আছেন আপনারা সবাই ?আশা করি আল্লাহ্ অশেষ রহমতে আপনারা সবাই ভালো আছেন এবং আমি দোয়া করি সবাই ভালো থাকুন আর ভালো রাখুন আপনার পিতা-মাতা এবং আপনার আশে-পাশের সকলকে ।

আমি প্রথমেই সকলের কাছে ক্ষমা চেয়ে নিচ্ছি ।যদি আমার লেখায় কোন ভূলত্রুটি হয়ে থাকে ।তাহলে আমাকে মন্তব্য করে জানাবেন অনুরোধ রইলো ।কারণ আমি ভূল করে তারপড় শিক্ষতে চাই ।

এখন আসুন তাহলে মূল বিষয়ে কথা বলি ।আমি এখন আপনাদের সাথে যে বিষয়টি শেয়ার করবো তা হলো ইসলামি বর্ষপঞ্জিকা।

মাস –

মাস হলো সময় গণনা করার একটি একক, যা পঞ্জিকাতে ব্যবহার করা হয়। সাধারণত চাঁদের পূর্ণ একটি পরিক্রমকালের সাথে এর সম্পর্ক আছে। মাসের ধারণার উদ্ভব হয় চাঁদের কলা হতে। এধরণের মাসকে চান্দ্র মাস বলা হয়ে থাকে। পুরাতত্ত্ববিদেরা পঞ্জিকা হিসাবে ব্যবহৃত মাপকাঠি পেয়েছেন, যা দেখে বোঝা যায়, প্যালিওলিথিক যুগ হতে মানুষ চাঁদের কলার ভিত্তিতে মাস হিসাব করে আসছে।

ইসলামি বর্ষপঞ্জি বা মুসলিম বর্ষপঞ্জি (হিজরী বর্ষপঞ্জি হিসাবেও পরিচিত) একটি চন্দ্রনির্ভর বর্ষপঞ্জি। বিভিন্ন মুসলিম দেশ এই বর্ষপঞ্জি অনুসরণ করে, আর পৃথিবীব্যাপী মুসলমানগণ অনুসরণ করেন ইসলামের পবিত্র দিনসমূহ উদযাপনের জন্য।

ইতিহাস –

ইসলাম ধর্মের শেষ বাণীবাহক মুহাম্মদ মক্কার ক্বুরায়েশদের দ্বারা বিতাড়িত হয়ে মক্কা থেকে মদীনা চলে যান। তাঁর এই জন্মভূমি ত্যাগ করার ঘটনাকে ইসলামে ‘হিজরত’ আখ্যা দেয়া হয়। রাসুল মুহাম্মদ (সা:)-এর মক্কা থেকে মদিনায় হিজরতের ঘটনাকে চিরস্মরণীয় করে রাখার উদ্দেশ্যেই হিজরী সাল গণনার সূচনা। ইসলামের দ্বিতীয় খলিফা ওমর (রা:)-এর শাসনামলে ১৭ই হিজরী অর্থাৎ রাসুল মুহাম্মদ (সা:)-এর মৃত্যুর সাত বছর পর চান্দ্র মাসের হিসাবে এই পঞ্জিকা প্রবর্তন করা হয়।

বিবরণ –

প্রতিদিন সূর্যাস্তের মাধ্যমে দিন গণনার শুরু হয়। তবে মাস গণনার ক্ষেত্রে নির্দিষ্ট ভূখন্ডে খালি চোখে অথবা খালি চোখানুগ যন্ত্রপাতির (যেমন: দূরবীণ, সাধারণ দূরবীক্ষণ যন্ত্র) সহায়তায় চাঁদ দেখার উপর নির্ভর করে। মাসগুলো চাঁদ দেখার উপর নির্ভর করে ২৯ অথবা ৩০ দিনের হয়। যেমাসে ২৯ দিন শেষ হলে নতুন মাসের চাঁদ দেখা যায় না, সে মাসে ৩০ দিন পূর্ণ করে মাস শেষ করা হয়।

মাসের নাম –

ইসলামি বর্ষপঞ্জির মাসসমূহ নিম্নরূপ:

  1. মুহররম محرّم
  2. সফর صفر
  3. রবিউল আউয়াল ربيع الأول
  4. রবিউস সানি ربيع الآخر أو ربيع الثاني
  5. জমাদিউল আউয়াল جمادى الأول
  6. জমাদিউস সানি جمادى الآخر أو جمادى الثاني
  7. রজব رجب
  8. শা’বান شعبان
  9. রমজান رمضان
  10. শাওয়াল شوّال
  11. জ্বিলকদ ذو القعدة
  12. জ্বিলহজ্জ ذو الحجة

[ইনশাআল্লাহ প্রত্যেক মাসের বিস্তারিত পাবেন এখানে। প্রতি মাসে ১ তারিখ ঐ মাসের টিউন পাবেন।]

নবাগত রাহী

"ইসলামিকএমবিট (ডট) কম" একটি উন্মুক্ত ইসলামিক ব্লগিং প্লাটর্ফম। এখানে সকলেই নিজ নিজ ইসলামিক জ্ঞান নিয়ে আলোচনা করতে পারেন, তবে এখানে বিতর্কিত বিষয় গুলো allow করা হয় না। আমি এই ব্লগ সাইটটির সকল টেকনিক্যাল বিষয় গুলো দেখাশুনা করি। আপনাদের যে কোন প্রকার সাহায্য, জিজ্ঞাসা, মতামত থাকলে আমাকে মেইল করতে পারেন contact@islamicambit.com

Leave a Reply