বিশ্বব্যাপী একই দিনে রোযা ও ঈদ উদযাপন

 

বিশ্বব্যাপী একই দিনে রোযা ও ঈদ উদযাপন

বিসমিল্লাহির রহমানির রহিম।

আসসালামু আ’লাইকুম।সবাইকে আমার আন্তরিক প্রীতি, সম্মান, শুভেচ্ছা ও ভালবাসা জ্ঞাপন করছি।আশাকরি আল্লাহ্‌র অশেষ রহমতে সবাই ভালো আছেন।এটি ইসলামিকএমবিট এ আমার প্রথম টিউন।তাই ভূল হলে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন।যাক আর কথা না বাড়িয়ে টিউন টি শুরু করি।

আমাদের সমাজে এক শ্রেণীর মানুষ বলে থাকে- চাঁদ ও সূর্য একটি করে আল্লাহ তা’আলা সৃষ্টি করেছেন।এই একই চাঁদ এ সূর্য সমগ্র জগতের আনাচে-কানাচে আলো দিচ্ছে।সুতরাং রোযা ও ঈদ আমরা সারা বিশ্বে একই সাথে পালন করব।অর্থাৎ একই দিনে একই তারিখে সারা বিশ্বে রোযা ও ঈদ পালন করতে হবে।

প্রথমতঃ

তাদের একথা নিতান্তই অসার, অযৌক্তিক ও বিভ্রান্তিকর।কেননা, এখানে বুঝার বিষয় হচ্ছে- আল্লাহ তা’আলা চাঁদ ও সূর্য একটি করে সৃষ্টি করেছেন বটে, কিন্তু এগুলোর উদয় ও অস্ত তো সারাবিশ্বে একই সময়ে হয় না।বরং দেখা যায়- কোন স্থানে চাঁদের আলো ঝলমল করেছে, আবার ঐ মুহূর্তেই অন্য স্থানে দিনের দ্বিপ্রহর বিদ্যমান।

দ্বিতীয়তঃ

কুরআন ও হাদীসে একই দিনে একই তারিখে সারাবিশ্বে রোযা ও ঈদ উদযাপন করার নি্র্দেশ প্রদান করা হয়নি।বরং চাঁদ দেখে যার যার দেশে রোযা ও ঈদ পালনের জন্য বলা হয়েছে।

তৃতীয়তঃ

কুরআন শরীফ, সহীহ হাদীস শরীফ, ফুকাহায়ে কিরামগণের ইজমায়ে শরীয়ত, সাহাবায়ে কিরামগণের সর্ণ্বযুগ প্রভৃতির কোথাও কোন দলিল পাওয়া যায় না যে, সারাবিশ্বে রোযা ও ঈদ একই দিনে হতে হবে।

চতুর্থতঃ

 আল্লাহ পাক রোযা ও ঈদকে চাঁদের উদয়ের সাথে সম্পৃক্ত করেছেন।যখন যে স্থানে চাঁদ উদয় হবে, তখন সে স্থানে রোযা ও ঈদ হবে।যেমন-নামাযকে আল্লাহ পাক সম্পৃক্ত করেছেন সূর্যের সাথে।যখন যে স্থানে সূর্যাস্ত হবে, তখন সে স্থানে মাগরিবের নামায আদায় করতে হবে।এক স্থানের সূর্যাস্তের সংবাদ অন্যস্থানে তাৎক্ষণিকভাবে জানার দ্বারা যেমন সেখানে মাগরিবের নামায আদায় করা যায় না, ঠিক তেমনিভাবে এক স্থানে নতুন চাঁদ দেখা গেলে, অন্যস্থানে রোযা ও ঈদ পালন করা যাবে না।বরং সবাই নামাযের ওয়াক্তের ন্যায় নিজ নিজ এলাকায় (দেশে) চাঁদ দেখে সেমতে রোযা ও ঈদ পালন করবে।

>সুতরাং এ নিয়ে ঝগড়া-ফাসাদ ও বিভ্রান্ত-অনৈক্য সৃষ্টি না করে প্রকৃত বাস্তবতা ও সত্যকে সকলের উপলদ্ধি করা দরকার।আমাদের দেশের যে সকল লোকেরা মক্কা শরীফে চাঁদ দেখে এদেশে রোযা ও ঈদ পালন করতে চান, তাদের এ বিভ্রান্তিকর ও হঠকারী কাজ থেকে বিরত থেকে এ দেশের মুসলিম ঐক্যকে সমুন্নত রাখা প্রয়োজন।

 

কষ্টকরে আমার এই টিউনটি দেখার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।আশা করি সবার ভাল লাগছে।আল্লাহ হাফেজ।

 

One thought on “বিশ্বব্যাপী একই দিনে রোযা ও ঈদ উদযাপন

  • October 22, 2012 at 8:14 am
    Permalink

    আপনার পোস্টটি আপডেট করা হয়েছে।আর বানানের প্রতি খেয়াল রাখবেন।
    আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।
    http://www.islamicambit.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_good.gifhttp://www.islamicambit.com/wp-content/plugins/wp-monalisa/icons/wpml_rose.gif

Leave a Reply