আল-হাদীস [পর্ব-৪৩] :: মুসলমানদের মান-ইজ্জতের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করা

পরম করুনাময় আল্লাহ্ এর নামে শুরু করলাম

 

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালই আছেন, আমি ও আমরা আপনাদের দোয়ায় এবং আল্লাহ্র অশেষ রহমতে অনেক ভাল আছি।বেশি হাদীস দেই না, কারন আমার মত অনেক লোক আছে, যারা বেশি লেখা দেখলে সেটা পড়তে চায় না, তাই অল্প কয়েকটা হাদীস দিলাম, যারা যত ব্যস্তই থাকুক এই অল্প কয়টি হাদীস পড়ে নিতে পারবে, এবং অল্প হবার কারনে মনে রাখতে পারবে আবার তা আমল করারও চেষ্টা করবে।

 

 

পর্ব এক     পর্ব ০২     পর্ব ০৩     পর্ব ০৪     পর্ব ০৫     পর্ব ০৬     পর্ব ০৭

পর্ব ০৮     পর্ব ০৯     পর্ব ১০     পর্ব-১১     পর্ব-১২     পর্ব-১৩     পর্ব-১৪

পর্ব ১৫     পর্ব ১৬     পর্ব-১৭     পর্ব-১৮     পর্ব-১৯     পর্ব-২০     পর্ব-২১

পর্ব-২২     পর্ব-২৩     পর্ব-২৪     পর্ব-২৫     পর্ব-২৬     পর্ব-২৭     পর্ব-২৮

পর্ব-২৯     পর্ব-৩০     পর্ব-৩১     পর্ব-৩২     পর্ব-৩৩     পর্ব-৩৪     পর্ব-৩৫

পর্ব-৩৬     পর্ব-৩৭    পর্ব-৩৮     পর্ব-৩৯     পর্ব-৪০     পর্ব-৪১     পর্ব-৪২

 

আল্লাহ পাক বলেছেন,“যে ব্যক্তি আল্লাহর কায়েম করা সম্মান ও মর্যাদা রক্ষা করবে, এটা তার নিজের জন্যই তার প্রভুর নিকট খুবই কল্যাণকর হবে”(সূরা আল-হজ্জঃ৩০)।

 

“যে ব্যক্তি আল্লাহর নিদর্শনসমূহের প্রতি সম্মান প্রদর্শন করবে;আর তা(সম্মান প্রদর্শন) দিলের তাকওয়ার ফল”(সুরা আল-হজ্জঃ৩২)।

 

“মুমিনদের প্রতি তোমার বিনয় ও নম্রতার ডানা সম্প্রসারিত কর”(সূরা আল-হিজবঃ৮৮)।

 

“যদি কেউ কোন ব্যক্তিকে হত্যার অপরাধ অথবা জমিনে বিপর্যয় সৃষ্টি করার অপরাধ ছাড়া (অন্যায়ভাবে) কাউকে হত্যা করে, তবে সে যেন সমস্ত মানুষকে হত্যা করল। আর যদি কোন ব্যক্তি কাউকে জীবন দান করে(অন্যায়ভাবে নিহত হওয়া থেকে রক্ষা করে) তবে সে যেন সমস্ত মানুষকে জীবন দান করল”(সূরা আল-মাইদাঃ৩২)।

 

২২২।আবু মূসা আশআরী(রা)থেকে বর্ণিত। তিনি বললেন, রাসূল(সা.) বলেছেনঃ এক মুমিন অন্য মুমিনের জন্য প্রাচীরস্বরুপ।যার এক অংশ অন্য অংশকে শক্তিশালী করে।(এ কথা বলার সময়) তিনি তাঁর এক হাতের আঙুল অন্য হাতের আঙুলের ফাঁকে ঢুকিয়ে দেখান।(বুখারী ও মুসলিম)

 

ভাল লাগলে কমেন্টে জানাতে ভুলবে না…

ভুলে ভরা জীবনে ভুল হওয়াটা অসম্ভব কিছু নয়,যদি আমার লেখার মাঝে কোন ভুলত্রুটি থাকে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। এবং ভিতরে লেখার মধ্যে কোন ভুল পেলে আমাকে একটু কষ্ট করে কমেন্টে জানিয়ে দিবেন, তাহলে আমি পরবর্তিতে ঠিক করে দিব। ধন্যবাদ সবাই ভাল থাকবেন।

 

মোঃ আবুল বাশার

আমি একজন ছাত্র,আমি লেখাপড়ার মাঝে মাঝে একটা ছোট্ট পত্রিকা অফিসে কম্পিউটার অপরেটর হিসাবে কাজ করে,নিজের হাত খরচ চালানোর চেষ্টা করি, আমি চাই ডিজিটাল বাংলাদেশ হলে এবং তাতে সেই সময়ের সাথে যেন আমিও কিছু শিখতে পারি। আপনারা সকলে ৫ ওয়াক্ত নামাজ পরার চেষ্টা করুন এবং অন্যকেও ৫ওয়াক্ত নামাজ পরার পরামর্শ দিন। আমার পোষ্ট গুলো গুরে দেখার জন্য ধন্যবাদ, ভাল লাগেলে কমেন্ট করুন। মানুষ মাত্রই ভুল হতে পারে,ভুল ত্রুটি,হাসি,কান্না,দু:খ,সুখ,এসব নিয়েই মানুষের জীবন। ভুলে ভড়া জীবনে ভুল হওয়াটা অসম্ভব কিছু নয়,ভুল ত্রুটি ক্ষমার দৃর্ষ্টিতে দেখবেন। আবার আসবেন।

Leave a Reply