জরুরী নছহিত (৪র্থ খণ্ড)

বিসমিল্লাহির রহমানীর রহিম

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সবাই? আশা করি ভালই আছেন? আমিও আপনাদের দোয়ায় অনেক ভাল আছি। তাহলে কাজের কথায় আসি।

প্রথম খণ্ড, দ্বিতীয় খণ্ডতিত্বীয় খণ্ড যারা পড়েন নি, তারা পড়ে নিন।

৩য় খণ্ডের পরে।

তাহাজ্জুদের নামাযঃ  

তাহাজ্জুদের নামাজের বহুত বড় ছওয়াব। আমাদের রাসূল (সঃ) সব সময় তাহাজ্জুদের নামাজ পড়িতেন। তাঁহার পবিত্র বিবিগণও তাহাজুজদের নামাজ পড়িতেন। তাহাজ্জুদের সময় দো’আ কবুল হয় এবং রহমত নাযিল হয়।

পতিভক্তিঃ

এখন তোমার ধর্মজীবন সম্বন্ধে কয়েকটি কথা আলোচনা করিব-স্ত্রীর উপর স্বামীর আদেশ পালন ফরজ। হাদীস শরীফে ইহার বহুত তাকিদ আসিয়াছে। রাসূল (সঃ) ফরমাইয়াছেন, যদি আমি কোন মানুষকে সাজদা করার আদেশ করিতাম, তবে রমনীদিগকে আদেশ করিতাম যে, তাহার যেন নিজ নিজ স্বামীকে সাজদা করে। কিন্তু আমাদের শরীয়তে যেহেতু তাযীমী ছাজদা হারাম, এই জন্য রাসূল (সঃ)  কাহাকেও সাজদাহ করার অনুমতি দেন নাই। অত্র হাদীছের প্রতি লক্ষ্য করিয়া খেয়াল করা দরকার যে, শরীয়তে স্বামীর ফরমাবাদারীর আদেশ কত তাকীদ সহকারে করা হইয়াছে। যে নারী স্বামীর নাফরমান এবং স্বামী তাহার প্রতি অসন্তুষ্ট, এমন নারী আল্লাহর রহমত হইতে বহুদূরে থাকিবে যতক্ষণ সে তাহার স্বামীকে সন্তুষ্ট না করিবে। স্মরণ রাখিবে! যদি কোন স্বামী ফরয কাজ সমাধা করিলে নারাজ হয় তবে তৎপ্রতি পরওয়া করিবে না। কেননা “লা-ত আতা লিমাখ্লু কিন্ ফি-মা’ ছিয়াতিল্ খ-লিকি” অর্থাৎ আল্লাহর বিরুদ্ধে কাহারও ফরমাবর্দারী চলে  না। এই হাসীদ খানা কয়েকবার বর্ণনা করা হইয়াছে। এখানেও শুধু স্মরণ করাইয়া দেওয়ার জন্য লিখিতে হইল। নচেৎ খোদা চাহেত, এইরূপ পরিস্থিতির সম্মুখীন হইবে না।

পরবর্তি খণ্ড নিয়ে খুব তারাতারিই আপনাদের মাঝে হাজির হব ইনশাআল্লাহ্

ভাল লাগলে কমেন্টে জানাতে ভুলবে না…

মোঃ আবুল বাশার

আমি একজন ছাত্র,আমি লেখাপড়ার মাঝে মাঝে একটা ছোট্ট পত্রিকা অফিসে কম্পিউটার অপরেটর হিসাবে কাজ করে,নিজের হাত খরচ চালানোর চেষ্টা করি, আমি চাই ডিজিটাল বাংলাদেশ হলে এবং তাতে সেই সময়ের সাথে যেন আমিও কিছু শিখতে পারি। আপনারা সকলে ৫ ওয়াক্ত নামাজ পরার চেষ্টা করুন এবং অন্যকেও ৫ওয়াক্ত নামাজ পরার পরামর্শ দিন। আমার পোষ্ট গুলো গুরে দেখার জন্য ধন্যবাদ, ভাল লাগেলে কমেন্ট করুন। মানুষ মাত্রই ভুল হতে পারে,ভুল ত্রুটি,হাসি,কান্না,দু:খ,সুখ,এসব নিয়েই মানুষের জীবন। ভুলে ভড়া জীবনে ভুল হওয়াটা অসম্ভব কিছু নয়,ভুল ত্রুটি ক্ষমার দৃর্ষ্টিতে দেখবেন। আবার আসবেন।

Leave a Reply