অন্যান্য আত্মীয়-স্বজনের হক

বিসমিল্লাহির রহমানীর রহিম

আসসালামু আলাইকুম, কেমন আছেন সাবাই? আশা করি ভালই আছেন? আমিও আপনাদের দোয়ায় অনেক ভাল আছি। তাহলে কাজের কথায় আসি।

 

চাচা, ফুফু, ভাতিজা, ভাতীজী, ভাগিনা, ভাগ্নী, মামা, খালা, ইত্যাদি যাহাদের সহিত জন্মগতভাবেই আত্মীয়তা হয়, তাহাদিগকে ভালবাসিতে হইবে। সকলের সহিত সদ্ব্যবহার করিতে হইবে। যদি তাহাদের খাওয়া পরার কষ্ট হয়, তবে সঙ্গতি অনুসারে তাহাদের সাহায্য করিতে হইবে। মাঝে মাঝে তাহাদের সহিত দেখা সাক্ষাৎ করিতে হইবে। তাহাদের দ্বারা যদি কোন কষ্ট হয় তবে তাহা সহ্য করিতে হইবে-আত্মীয়তা ছেদন করা যাইবে না। শ্বশুর, শাশুড়ি, শালা, ভগ্নি-পতি, জামাই, বউ, স্ত্রীর আগে ঘরের সন্তান স্বামীরে অন্য পক্ষের সন্তান ইত্যাদি যাহাদের বিবাহর কারণে আত্মীয়তা হয়, তাহাদেরও কিছু হক কোরআন শরীফে বর্ণনা করা হইয়াছে। অতএব, তাহাদের সহিতও সাধারণ মুসলমানদের চেয়ে বেশি সদ্ব্যবহার করা দরকার। তাহারা কোন কষ্ট দিলে তাহা সহ্য করা দরকার।

ভাল লাগলে কমেন্টে জানাতে ভুলবে না…

ভুলে ভরা জীবনে ভুল হওয়াটা অসম্ভব কিছু নয়,যদি আমার লেখার মাঝে কোন ভুলত্রুটি থাকে ক্ষমার দৃষ্টিতে দেখবেন। ধন্যবাদ সবাই ভাল থাকবেন।

 

মোঃ আবুল বাশার

আমি একজন ছাত্র,আমি লেখাপড়ার মাঝে মাঝে একটা ছোট্ট পত্রিকা অফিসে কম্পিউটার অপরেটর হিসাবে কাজ করে,নিজের হাত খরচ চালানোর চেষ্টা করি, আমি চাই ডিজিটাল বাংলাদেশ হলে এবং তাতে সেই সময়ের সাথে যেন আমিও কিছু শিখতে পারি। আপনারা সকলে ৫ ওয়াক্ত নামাজ পরার চেষ্টা করুন এবং অন্যকেও ৫ওয়াক্ত নামাজ পরার পরামর্শ দিন। আমার পোষ্ট গুলো গুরে দেখার জন্য ধন্যবাদ, ভাল লাগেলে কমেন্ট করুন। মানুষ মাত্রই ভুল হতে পারে,ভুল ত্রুটি,হাসি,কান্না,দু:খ,সুখ,এসব নিয়েই মানুষের জীবন। ভুলে ভড়া জীবনে ভুল হওয়াটা অসম্ভব কিছু নয়,ভুল ত্রুটি ক্ষমার দৃর্ষ্টিতে দেখবেন। আবার আসবেন।

2 thoughts on “অন্যান্য আত্মীয়-স্বজনের হক

Leave a Reply