“দশ ব্যক্তি অত্যাচারী”

পরম করুনাময় আললাহর নামে শুরু করিতেছি যিনি আসমান জমীন সব কিছুর তৈরী করেছেন হযরত সুফিয়ান সাওরী রহঃ বলেন দশ প্রকারের লোককে অত্যাচারী সাব্যস্ত করা হবে.

নিচে তাদের প্রকার দেয়া হলঃ

১.সে ব্যক্তি যে নিজের জন্য দোয়া করে কিন্তু মা বাবা এবং অপরাপর মুসলমানের কথা ভুলে যায় অর্থাত্‍ অন্যদের জন্য দোয়া করে না ।

২.সে ব্যক্তি যে দৈনিক কমপক্ষে কুরআনে কারীম থেকে একশত আয়াত তেলায়ত না করে ।

৩.সে ব্যক্তি যে মসজিদে প্রবেশ করে কিন্তু দুরাকায়াত নামাজ আদায় না করে বেরিয়ে আসে।

৪.সে ব্যক্তি যে কবরস্হানের পাশ দিয়ে যাতায়াত কালে মুর্দাদের সালাম করে না এবং তাদের জন্য দোয়াও করে না ।

৫.সে ব্যক্তি যে জুময়ার দিন শহরে প্রবেশ করে আর জুময়ার নামাজ আদায় না করে বেরিয়ে যায় ।

৬.সে নারী পুরুষ যাদের গ্রামে কোন আলেম আসলো আর ঐ গ্রামের কোন লোকই দীনি বিষয়াদি শিক্ষা গ্রহন করার জন্য তার নিকট গেল না।

৭.সে সকল ব্যক্তি যারা একে অপরের সহিত উঠাবসা করে কিন্তু একে অপরের নাম জেনে নেয়ার প্রয়োজন মনে করে না।

৮.সে ব্যক্তি যাকে কেউ খানা পিনার জন্য ডাকল কিন্তু সে গেল না তবে শর্ত হলো এমন দাওয়াত হওয়া যে দাওয়াতে শরিয়তে কোন অপত্তি নেই।

৯.সে যুবক যে যৌবন লাভ করল অথচ দীনি ইলম এবং আদব শিক্ষা লাভ করল না ।

১০.সে ব্যক্তি যে পেট ভরে আহার করল অথচ তার প্রতিবেশী অনাহারে থাকল ।

(তামবীহুল গাফেলীন)

আললাহ তায়ালা আমাদের সবাইকে এদশটি বিষয় থেকে বেচে থাকার তাওফিক দান করুন আমীন! অবশেষে আপনাদের সবার কাছে আমার আকুল আবেদন যে আপনারা সবাই আমার জন্য  দোয়া করবেন কারন আমার পড়াশুনা করতে মন চাইতেছে না আমি একজন  মাদ্রাসার ছাত্র এবছর জামাতে শরহে জামীতে পড়ছি আর পাচ বছর পড়লে মাওলানা পাশ করা হবে তাই আপনারা সবাই আমার জন্য প্রাণ খুলে দোয়া করবেন আমিও আপনাদের সবার জন্য করবো।

4 thoughts on ““দশ ব্যক্তি অত্যাচারী”

  • December 29, 2012 at 7:32 am
    Permalink

    আমীন ।আপনার জন্য দোয়া করি আর আপনি আপনার গুরুত্বপুর্ণ সময় থেকে যেন আমাদের একটু সময় দিতে পারেন এর জন্য ও দোয়া করি এবং আপনাকে অনুরোধ করি ।

  • March 17, 2013 at 6:25 am
    Permalink

    আসসালামু আলাইকুম কেমন আছেন আপনারা সবাই

Leave a Reply