রাসূল সাঃ এর কি ছায়া ছিল না?

প্রশ্ন

রাসূল সাঃ এর ছায়া আছে কি? কতিপয় ব্যক্তিগণ এটা প্রচার করছে যে, রাসূল সাঃ এর কোন ছায়া ছিল না। এ বক্তব্যটি কতটুকু সহীহ? দয়া করে জানালে উপকৃত হবো।

জবাব

بسم الله الرحمن الرحيم

রাসূল সাঃ এর ছায়া ছিল না মর্মে যে বক্তব্য দেয়া হয়, তা বিশুদ্ধ নয়। এ ব্যাপারে বর্ণিত হাদীসও সহীহ নয়। বরং জাল ও ভিত্তিহীন।
রাসূল সাঃ আমাদের মতই রক্ত মাংসের মানুষ ছিলেন। তারও ঘাম হতো, ছায়া ছিল। ছায়া ছিল না বলাটা রাসূল সাঃ এর জীবনী ও সাহাবাদের বক্তব্য সম্পর্কে অজ্ঞতার পরিচায়ক।

রাসূল সাঃ এর ছায়া না থাকা সংক্রান্ত একটি জাল বর্ণনা

اخرج الحاكم الترمذى من طريق عبد بن قيس الزعفرانى عن عبد الملك بن عبد الله بن الوليد عن ذكران ان رسول الله صلى الله عليه وسلم لم يكن يرى له ظل فى شمس ولا قمر، ذكره السيوطى فى “الخصائل الكبرى-1/122)

অনুবাদ-যাকওয়ান থেকে বর্ণিত। তিনি বলেন-সূর্য ও চাঁদের আলোতে রাসূল সাঃ এর ছায়া দেখা যেতো না। {আল খাসায়েলুল কুবরা-১/১২২}

জবাব

এ বর্ণনাটি জাল ও ভিত্তিহীন। কেননা, প্রথমত তার সূত্রে রয়েছে আব্দুর রহমান বিন কাইস যাফরানী, যার সম্পর্কে মুহাদ্দিসীনদের কঠোর মন্তব্য রয়েছে।
বিজ্ঞ রিজাল শাস্ত্রবীদ আব্দুর রহমান বিন মাহদী এবং ইমাম আবু যরআ রহঃ তাকে মিথ্যুক বলেছেন।

আবু আলী সালেহ ইবনে মুহাম্মদ রহঃ বলেন-
كلن عبد الرحمن بن قيس الزعفرانى يضع الحديث
তথা আব্দুর রহমান বিন কাইস যাফরানী হাদীস জাল করতো।

এছাড়াও তার সম্পর্কে ইমাম আহমাদ বিন হাম্বল রহঃ, ইমাম বুখারী রহঃ, ইমাম মুসলিম রহঃ, ইমাম নাসায়ী রহঃ প্রমূখ প্রখ্যাত ইমামদের কঠোর উক্তি রয়েছে।

দ্রষ্টব্য- তারীখে বাগদাদ-১০/২৫১-২৫২, মীযানুল ই’তিদাল-২/৫৮৩, তাহযীবুত তাহযীব-৬/২৫৮

এছাড়া সত্যিই যদি রাসূল সাঃ এর ছায়া না হতো, তাহলে এটি অতি আশ্চর্যজনক বিষয় হওয়ায় অনেক সহীহ হাদীস থাকার কথা। অথচ এমন কোন হাদীস নেই।

তাছাড়া রাসূল সাঃ এর ছায়া আছে মর্মে একাধিক সহীহ হাদীস বিদ্যমান রয়েছে। তাই ছায়া নেই বলাটা অজ্ঞতাসূলভ মন্তব্য ছাড়া কিছু নয়।

রাসূর সাঃ এর ছায়া ছিল মর্মে সহীহ হাদীস

ويئست منه فلما كان شهر ربيع الأول دخل عليها فرأت ظله فقالت إن هذا لظل رجل وما يدخل علي النبي صلى الله عليه وسلم فمن هذا فدخل النبي صلى الله عليه وسلم
এমনকি হযরত যায়নব রাঃ রাসূল সাঃ এর আগমন থেকে নিরাশ হয়ে গেলেন। রবীউল আওয়ালে তার নিকট যান। ঘরে প্রবেশের প্রক্কালে যয়নব রাঃ তাঁর ছায়া দেখতে পান এবং বলেন-এতো কোন পুরুষ মানুষের ছায়া বলে মনে হয়। তিনিতো আমার কাছে আসেন না। তাহলে এ ব্যক্তি কে? ইত্যবসরে রাসূল সাঃ প্রবেশ করেন। {মুসনাদে আহমাদ, হাদীস নং-২৬৮৬৬}

আরো হাদীস-মুস্তাদরাকে হাকীম-৫/৬৪৮, হাদীস নং-৮৪৫৬

والله اعلم بالصواب
উত্তর লিখনে
লুৎফুর রহমান ফরায়েজী
সহকারী মুফতী-জামিয়াতুল আস’আদ আল ইসলামিয়া-ঢাকা
ইমেইল-jamiatulasad@gmail.com
lutforfarazi@yahoo.com

2 thoughts on “রাসূল সাঃ এর কি ছায়া ছিল না?

  • December 16, 2012 at 4:22 pm
    Permalink

    মাশাআল্লাহ! আমরা অনেক খুশি আপনার আগমনে।আল্লাহ আপনাকে কবুল করুন।

  • December 18, 2012 at 9:35 pm
    Permalink

    অনেক সুন্দর একটি বিষয় ‍নিয়ে লেখার জন্য ধন্যবাদ। অনেকের কাছে বিষয়টা ঘোলাটে ছিল, আশা করি আপনার পোষ্টটা পড়ার পর তাদের তা পরিষ্কার হয়ে যাবে। আল্লাহ আপনাকে এমন সুন্দর আরো পোষ্ট লিখার তওফিক দান করুন। আমীন।

Leave a Reply